ইন্ডিয়া জোটের নামে হবে না লোকসভার ভোট, ঘোষণা সেলিমের

কলকাতা: পার্টির কর্মী ও সমর্থকদের জোট বিভ্রান্তি দূর করতে বাংলার নির্বাচনী রণকৌশল স্পষ্ট করে দিল সিপিএম । সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিম জানালেন, বাংলায় ইন্ডিয়া জোটের নামে লোকসভা ভোট হবে না। লোকসভায় একই সঙ্গে বিজেপি এবং তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়বে বামেরা। সেলিমের ইঙ্গিত, পুজোর পরই এ রাজ্যে কংগ্রেস এবং আইএসএফের সঙ্গে আসন সমঝোতা নিয়ে আলোচনা শুরু করবে সিপিএম। সিপিএম রাজ্য সম্পাদক ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, বিজেপি বিরোধী মঞ্চ 'ইন্ডিয়া ' কোনও নির্বাচনী জোট নয়। অর্থাৎ, রাজনৈতিক মহল মনে করছে, বাংলায় অন্ধ তৃণমূল বিরোধিতার লাইন রাখতে গিয়ে 'ইণ্ডিয়া' জোট সিপিএমের কাছে 'ধরি মাছ, না ছুঁই পানি'- র মতো। সেলিমের এই মন্তব্যে প্রশ্ন রাজনৈতিক মহলে। পাশাপশি ইন্ডিয়া জোটে অংশ নেওয়া, তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াই, বিজেপির বিরুদ্ধে রণকৌশল, এসব নিয়ে সিপিএম কর্মীদের অন্দরে বিস্তর বিভ্রান্তি রয়েছে। সেই বিভ্রান্তি দূর করতে সোশাল মিডিয়ায় ‘যুক্তি-তক্কো-গপ্পো’ নামের একটি অনুষ্ঠান শুরু করেছে সিপিএম। যার প্রথম পর্ব শনিবার সম্প্রচারিত হয়েছে সিপিএমের ফেসবুক পেজে। ওই অনুষ্ঠানে সমর্থকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর মহম্মদ সেলিম দিয়েছেন। তাতেই তিনি জানান, বাংলায় ইন্ডিয়া জোটের ব্যানারে ভোট হবে না। ভোটে লড়াই হবে তৃণমূল ও বিজেপি দুই দলের বিরুদ্ধেই।

সেলিমের বক্তব্য, সিপিএম মনে করে ‘ইন্ডিয়া’ একটি ‘ব্লক’। এটি কোনও নির্বাচনী জোট নয়। সুতরাং এই ব্লকের সব দলের মধ্যে আসন সমঝোতা হতেই হবে তার কোনও মানে নেই। সিপিএমের রাজ্য সম্পাদকের কথায়,,”ইন্ডিয়ার নামে ভোট হবে না বাংলায়। বাংলায় তৃণমূল, বিজেপি উভয়ের বিরুদ্ধেই আমাদের লড়াই চলবে!” সেলিম জানান, এখনও আসন সমঝোতা নিয়ে কংগ্রেসের সঙ্গে কোনও আলোচনা হয়নি। বামপন্থী দলগুলির মধ্যেও কোনও আলোচনা হয়নি। কংগ্রেস, আইএসএফ সকলের সঙ্গেই পুজোর পর আলোচনা শুরু হবে। অর্থাৎ সেলিম রাজ্যে কংগ্রেস এবং আইএসএফকে নিয়ে আলাদা একটি নির্বাচনী সমঝোতা চাইছেন। সিপিএমের এই দ্বিচারিতা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। পাশাপাশি ফরওয়ার্ড ব্লক চায় না কংগ্রেসের সঙ্গে জোট হোক। তাছাড়া, সিপিএমের অন্দরেও প্রশ্ন রয়েছে, আগামী লোকসভা ভোটে কংগ্রেস আদৌ তৃণমূলের বিরদ্ধে লড়াইয়ে বামেদের সঙ্গে সমঝোতা করবে কী না? নাকি 'ইন্ডিয়া' জোটের জোট ধর্ম কে প্রাধান্য দেবে হাই কমান্ডের নির্দেশ মেনে?

শেয়ার :